আপনি নিজেকে কিভাবে গুনাহ থেকে বাঁচাবেন?


একটি অসাধারন গল্প। সবাই পড়ুন
এবং শেয়ার করুন।
একদিন এক যুবক একজন আলেমের
কাছে এসে বললঃ “হুযুর, আমি একজন
তরুণ
যুবক ।কিন্তু সমস্যা হল, আমার
মাঝে মাঝে প্রবল খায়েশ কাজ
করে ।
আমি যখন
রাস্তা দিয়ে চলাফেরা করি, তখন
আমি মেয়েদের
দিকে না তাকিয়ে পারি না ।
আমি এখন কি করতে পারি ?”
তখন ঐ আলেম কিছুক্ষন চিন্তা করলেন ।
চিন্তা করার পর তাকে একটা দুধ
ভর্তি গ্লাস
দিলেন । গ্লাস পুরোটায় দুধে কানায়
কানায়
পরিপুর্ণ ছিল । অতঃপর ঐ আলেম
তাকে বললেনঃ “আমি তোমাকে বাজারের
একটি ঠিকানা দিচ্ছি, তুমি এই দুধটুকু
সোজা সেখানে পৌছিয়ে দিয়ে আসবে ।

আলেম তাকে আরও নির্দেশ দিলেন
যে,
গ্লাস থেকে এক ফোঁটা দুধও
যাতে না পরে ।
অতঃপর ঐ আলেম, উনার এক ছাত্রকে ঐ
যুবকের সহযোগী করে আদেশ
দিলেনঃ “তুমি এই যুবকের
সাথে বাজারে যাও
এবং সে যদি যাওয়ার সময় এই গ্লাস
থেকে এক ফোঁটা দুধও ফেলে দেয়,
তাহলে তুমি তাকে চরম
ভাবে পিটাতে থাকবে ।
ঐ যুবকটি সহজেই দুধটুকু
বাজারে পৌছিয়ে দিল এবং এই
সংবাদ
হুযুরকে জানানোর জন্য
দৌড়ে ছুটে আসল ।
হুযুর
জিজ্ঞাসা করলেনঃ “তুমি যাওয়ার
সময়
কয়টি মেয়ের চেহারা দেখেছ?”
যুবকটি সবিস্ময়ে বললঃ “হুযুর,
আমি তো বুঝতেই পারি নি আমার
চারপাশে কি চলছিল । আমি তো এই
ভয়েই
তটস্থ ছিলাম যে, আমি যদি দুধ
ফেলে দিই
তবে রাস্তায় সমবেত সকল মানুষের
সামনে আমাকে মারা হবে ।
হুযুর হাসলেন
এবং বললেনঃ “মুমিনরা ঠিক
এভাবেই আল্লাহকে ভয় করে ।
এবং মুমিনরা সবসময় চিন্তা করে,
যদি সে আল্লাহর উপর বিশ্বাস ঐ দুধের
ন্যায়
ছিটকে ফেলে তবে তিনি সুবহানাহু
ওয়া তায়ালা কিয়ামত দিবসে সমগ্র
সৃষ্টিজগতের
সামনে তাকে অপমানিত করবেন
। এভাবে সর্বদাই বিচার দিবসের
চিন্তা,
মুমিনদের গুনাহ
হওয়া থেকে বাঁচিয়ে রাখে ।”
==============================
========
এই পোস্টটি শেয়ার করার
ফলে যদি কোন
একজন ভাল হয় তাহলে তার সওয়াবের
ভাগিদার আপনিও হবেন।শেয়ার করুন।
ভাল
কাজে নিজেকে নিয়োজিত করার
সুযোগ
নিন।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s