কুরবানী কি মিনাতেই হওয়া জরুরী? হজ্বের কোরবানি সম্পরকিত।


কুরবানী কি মিনাতেই হওয়া জরুরী?

কুরবানী মিনাতেই যবেহ করা জরুরী নয়। মক্কার হারামের সীমার ভিতরে যে কোন স্থানে কুরবানী যবেহ করা যায়। হারামের সীমার বাইরে হজ্জের কুরবানী সিদ্ধ হবে না; যদিও তাঁর গোশত হারামের ভিতরে বিতরণ করা ্কিত।

ভেবেছিলাম কুরবানী দিতে পারব না। তাই তাশরীকের দিনগুলিতে রোযা রাখলাম। কিন্তু ১৩ তারিখের রাত্রে মনে হল, আমার কাছে যে টাকা আছে, তাঁতে কুরবানী দেওয়া যেতো। তাছাড়া বাড়ী ফিরে ৭ টি রোযা রাখাও কঠিন। সুতরাং ১৪ তারিখের রাতে বা দিনে কুরবানী দিলে কি তা যথেষ্ট হবে?

১৩ তারিখের সূর্য অস্ত গেলে আর কুরবানী শুদ্ধ হবে না। ৩৮৩ (ঐ ২/২৯৬) অতঃএব ৩টি রোযা রেখে তাশরীকের দিনসমূহ অতিবাহিত করে পুনরায় কুরবানী দিতে চাইলে আর হবে না। বাকী ৭টি রোযা দেশে পূর্ণ করতে হবে।

দেখা যায়, অনেকে কুরবানী নিজ হাতে যবেহ করে ফেলে চলে যায়। এটা কি ঠিক?

কুরবানী যবেহ করে সম্পূর্ণ ফেলে দেওয়া বৈধ নয়। বরং তাঁর কিছু খাওয়া ও দান করা কর্তব্য। তাঁতে কষ্ট আছে মনে করলে নির্দিষ্ট সংস্থায় টাকা জমা দেওয়া যায়।

Advertisements