তাবলীগ জামায়াতের কিছু ইমান ধ্বংসকারী আকিদাহ! পার্ট *2:


তাবলীগ জামাত এড় কিছু
ঈমাণধ্বংসকারী বিশ্বাস – ২
বিখ্যাত সূফী (?) ও বুজুর্গ হজরত শায়খ
আহমদ রেফয়ী (রঃ) ৫৫৫
হিজরী সনে হজ্জ সমাপন
করিয়া নবীজির রওজা জিয়ারতের
জন্য মদিনায় হাজির হন।
সেখানে তিনি নিম্নোক্ত রওজার
সামনে দাঁড়াইয়া নিম্নোক্ত দুটি বয়াত
পড়েন।
“দূরে থাকা অবস্থায় আমি আমার
রুহকে হুজুর সাঃ এর
খেদমতে পাঠাইয়া দিতাম। সে (রুহ)
আমার নায়েব
হইয়া আস্তানা শরীফে চুম্বন করিত।
আজ আমি শ্বশরীরে দরবারে হাজির
হইয়াছি। কাজেই হুজুর আপন হস্ত
বাড়াইয়া দেন যেন আমির ঠোট
উহাকে চুম্বন করিয়া তৃপ্তি হাসিল
করে।
বয়াত পড়ার সঙ্গে সঙ্গে (??) কবর
হইতে হাত মোবারক বাহির
হইয়া আসে এবং হযরত
রেফায়ী উহাকে চুম্বন
করিয়া তৃপ্তি হাসিল করেন।
বলা হয় যে, সে সময়
মসজিদে নববীতে ৯০ হাজার লোকের
সমাগম ছিল। সকলেই বিদু্তের
মতো হাত মোবারকের চমক
দেখিতে পায়। তাহাদের
মধ্যে মাহবুবে ছোবহানী আব্দুল
কাদের জিলানীও ছিলেন। সূত্র:
ফাজায়েলে হজ্জ-২৫৮ পৃষ্ঠা ২৩তম
নবী প্রেমের কাহিনী।
ওহে তাবলীগ প্রেমী আল্লাহর
বান্দারা, চিন্তা কর। জ্ঞান খাটাও।
আমার কথায় না, আল্লাহর কথায়
যা সূরা যুমার এর ১৮ নং আয়াত এ।
আজও মসজিদে নববীতে ৯০ হাজার
লোক ধারণ করে না। আর ৯০ হাজার
লোক যদি থেকেই
থাকে তাহলে কিভাবে ৯০ হাজার
মানুষ এট এ টাইম এই হাতের
ঝলকানি দেখতে পায়?
=> এই ফালতু মার্কা কাহিনীই
কি তোমরা বিশ্বাস কর?
=> এই সব জিনিসেরই
কি তোমরা তাবলীগ করো?
নবীজি সাঃ কখনো আবু বকর(রাঃ)
ওমর(রাঃ), ওসমান(রাঃ), আলী (রাঃ)
এর জন্য হাত বাড়ালেন না।
কখনো নবী পরবর্তী এত যুদ্ধ
হাঙ্গামার সময় হাত বাড়ালেন না। আর
কোন জায়গার কোন রেফায়ীর জন্য
কবর থেকে হাত বাড়ান। এই সব
গাজাখুরী কাহিনীই কি তোমাদের
তাবলীগের বিষয়?
=>আর ৯০ হাজার মানুষের
কথা বইলা মানুষের মাথায় এই
কাহিনীটাকে সত্য হিসেবে স্থান
দিতে চেষ্টা করা হইছে যে ৯০ হাজার
লোক যেখানে হাত দেখতে সেটা ভূল
হইতে পারে না।
=> এবং আব্দুল কাদের
জিলানী রহঃ এর নাম
দিয়া কাহিনীটারে আরো পাকাপোক্ত
করা হইছে।
=> আবার দেখেন রুহকে ইমেইলের
মতো সেন্ড করে, প্রতিবারই
নবীজি সাঃ কবর থেকে চুমা দেন।
এই সব কাহিনী একমাত্র সূফীদেরই
হয়ে থাকে যেমন দেওয়ানবাগীর ১৯৯৮
সালের সম্মেলনে নাকি স্বয়ং আল্লাহ
ও রাসূল সাঃ দেওয়ান
শরীফে এসেছেন। নাউজুবিল্লাহ।
বুখারীর প্রথমে দিকের সহীহ হাদিস>
যে নবীর নামে মিথ্যারোপ
করে সে জাহান্নামে তার
ঠিকানা বানিয়ে নেয়।
এই হাদিস অনুযায়ী যারা নবীর
নামে মিথ্যারোপ করে,
তাবলীগে গিয়ে গাজাখুরি মিথ্যা বানোয়াট
কাহিনী শুনে এসে প্রচার করে,
আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই
তারা কি জাহান্নামে তাদের
ঠিকানা বানিয়ে নিচ্ছে না?
==============================
===============
জনৈক বেদুঈন হুজুর (ছঃ) এর কবর
শরীফের নিকট দাড়াইয়া আরজ করিল,
হে রব! তুমি গোলাম আজাদ করার হুকুম
করেছো। ইনি (নবী সাঃ) তোমার
মাহবুব, আমি তোমার গোলাম। আপন
মাহবুবের কবরের উপর
আমি গোলামকে (জাহান্নামের) আগুন
হইতে আজাদ করিয়া দাও। গায়েব
হইতে আওয়াজ আসিল,
তুমি একা নিজের জন্য কেন
আজাদী (ক্ষমা) চাহিলে? সমস্ত
মানুষের জন্য কেন
আজাদী চাহিলে না।
আমি তোমাকে আগুন হইতে আজাদ
করিয়া দিলাম।
(সূত্র: ফাজায়েলে হজ্জ্ব-২৫৪ পৃষ্টার
১ম কাহিনী)
সম্মানিত জ্ঞানী মুসলিম ভাইগণ,
রাসুলের মৃতু্র পর তার
মাজারে গিয়ে প্রার্থনা করা মাজারপূজারীদের
সাদৃশ্য নয় কি?
গায়েবী আওয়াজ শুনা তো নবুওয়াতের
কাজ। ঐ বেদুঈন কি নবী ছিল
যে গায়েবী আওয়াজ এলো “
আমি তোমাদের আগুন থেকে আজাদ
করিয়া দিলাম”।
ভাবতে অবাক লাগে শাইখুল হাদিসের
মত একজন স্বনামধন্য আলিম এ
জাতীয় ইসলাম বিরোধী আক্বিদাহ
বিশ্বাস কিভাবে ছড়াতে চেয়েছেন
তাবলীগী নিসাবের মাধ্যমে।
কোরআন
থেকে আমরা জানতে পারি আল্লাহ শুধু
মাত্র মুসা আঃ এর সাথে দুনিয়ায়
জীবনে কথা বলতেন। এবং অন্য
আয়াতে আছে মানুষের এমন কোন
যোগ্যতা নাই যে সে আল্লাহর
সাথে কথা বলবে। কিন্তু
তাবলীগি নিসাব পড়লে বুঝা যায়
আল্লাহ গায়েবীভাবে মানুষের
সাথেও
কথা বলেন।
আমরা মুসলিমরা বিশ্বাস
করি না আল্লাহ নবীর পরে আমাদের
সাথে কথা বলবেন। এই আক্বিদাহ
একমাত্র দেওয়ানবাগী, সুরেশ্বরী,
চরমোনাই এর পীরগণ ও সূফীবাদিরাই
রাখতে পারেন। কারণ তাদের হজ্জ
করা লাগে না।
কাবা এবং স্বয়ং আল্লাহ ও রাসুল
তাদের বাসায় আসেন। নাউজুবিল্লাহ।
এই সব পীরপন্থী গ্রন্থ ও পীরদের
ইসলাম আর নবী মোহাম্মদ সাঃ এর
ইসলাম কখনোই এক নয়, কখনো ছিলও
না।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s