মাযহাব মানা ফরয নাকি রাসুলুল্লাহ সঃ এর আনুগত্য করা ফরয?


মাযহাব মানা ফরয নাকি রাসূলের আনুগত্য করা
ফরয?
(1) হে মুমিনগণ! তোমরা আল্লাহর আনুগত্য কর এবং
রাসূলের (সাঃ) আনুগত্য কর। আর তোমাদের
আমলসমুহ বিনষ্ট করো না। (Muhammad: 33)
(2) রাসুল তোমাদের যা দেন তা গ্রহন কর এবং যা
নিষেধ করেন তা থেকে বিরত থাক। (Al-Hashr :
07)
(3) আর যে কেউ আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের
আনুগত্য করে আল্লাহকে ভয় করে এবং তাঁর
তাকওয়া অবলম্বন করে, তারাই কৃতকার্য। (An-Noor:
52)
(4) আর তোমরা আনুগত্য কর আল্লাহ ও রাসূলের,
যাতে তোমাদের উপর রহমত করা হয়। (Aali-Imraan:
132)
(5) নামায কায়েম কর, যাকাত প্রদান কর এবং রাসূলের
আনুগত্য কর, যাতে তোমরা রহমতপ্রাপ্ত হতে পার।
(An-Noor: 56)
(6) নামায কায়েম কর, যাকাত প্রদান কর এবং আল্লাহ ও
তাঁর রাসূলের আনুগত্য কর। (Al-Ahzaab: 33)
(7) তোমরা নামায কায়েম কর, যাকাত প্রদান কর এবং
আল্লাহ ও রাসূলের আনুগত্য কর। আল্লাহ খবর
রাখেন তোমরা যা কর। (Al-Mujaadila: 13)
(8) আর যারা আল্লাহ ও রাসুলের আনুগত্য করে তারা
থাকবে তাদের সাথে, যাদের উপর আল্লাহ অনুগ্রহ
করেছেন নবী, সিদ্দীক, শহীদ ও
সৎকর্ম্শীলদের মধ্য থেকে। আর সাথী
হিসেবে তারা হবে উত্তম। (An-Nisa: 69)
(9) এবং যে কেউ আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের আনুগত্য
করবে, তাকে তিনি জান্নাতে দাখিল করাবেন, যার
তলদেশে নহরসমুহ প্রবাহিত। পক্ষান্তরে যে
ব্যক্তি পিছনে ফিরে যাবে তিনি তাকে যন্ত্রণাদায়ক
শাস্তি দিবেন। (Al-Fath: 17)
(10) তোমাদের মধ্যে যে কেউ আল্লাহ ও তাঁর
রাসূলের আনুগত্য করবে এবং সৎকর্ম করবে, আমি
তাকে দুবার প্রতিদান দেব এবং তার জন্য আমি সম্মান
জনক রিযিক প্রস্তুতকরে রেখেছি। (Al-Ahzaab:
31)
(11) তিনি তোমাদের আমল-আচরণ সংশোধন করবেন
এবং তোমাদের পাপসমূহ ক্ষমা করবেন। যে কেউ
আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের আনুগত্য করে, সে
অবশ্যই মহা সাফল্য অর্জন করলো। (Al-Ahzaab:
71)
(12) হে আমাদের রব! আমরা সে বিষয়ের প্রতি
বিশ্বাস স্থাপন করছি, যা তুমি নাযিল করেছ, আমরা
রাসূলের অনুসরন করছি। অতএব, আমাদিগকে
সাক্ষ্যদাতাদের তালিকাভুক্ত করে নাও। (Aali Imraan:
53)
(13) তোমরা আল্লাহর আনুগত্য কর এবং রাসূলের
অনুগত্য কর আর সাবধান হও। আর যদি তোমরা মুখ
ফিরিয়ে নাও, তবে জেনে রাখ, আমার রাসূলের
দায়িত্ব প্রকাশ্য প্রচার করা। (Al-Maaida: 92)
(14) যে রাসুলের আনুগত্য করল, সে আল্লাহরই
আনুগত্য করল। আর যে মুখ ফিরিয়ে নিল, তবে আমি
তোমাকে তাদের উপর তত্ত্বাবধায়ক করে
প্রেরণ করিনি।(An-Nisa: 80)
(15) তোমরা আল্লাহর আনুগত্য কর এবং রাসূলের
আনুগত্য কর। কিন্ত্ত তোমরা যদি মুখ ফিরিয়ে নাও,
তবে আমার রাসূলের তো একমাত্র দায়িত্ব হচ্ছে
স্পষ্টভাবে বাণী পৌঁছে দেয়া।(At-Taghaabun: 12)
(16) বলুন, আল্লাহ ও রাসূলের আনুগত্য কর। তারপর
যদি তারা মুখ ফিরিয়ে নেয়, তবে আল্লাহ
কাফেরদিগকে ভালবাসেন না। (Aali-Imraan: 32)
(17) বলুনঃ আল্লাহর আনুগত্য কর এবং রাসূলের
আনুগত্য কর। অতঃপর যদি তোমরা মুখ ফিরিয়ে নাও,
তবে তার উপর ন্যস্ত দায়িত্বের জন্যে সে দায়ী
এবং তোমাদের উপর ন্যস্ত দায়িত্বের জন্যে
তোমরা দায়ী। তোমরা যদি তাঁর আনুগত্য কর, তবে
সৎ পথ পাবে। রসূলের দায়িত্ব তো কেবল
সুস্পষ্টরূপে পৌছে দেয়া। (An-Noor: 54)
(18) অতএব তোমরা যথাসাধ্য আল্লাহকে ভয় কর,
শুন, আনুগত্য কর এবং ব্যয় কর। এটা তোমাদের
জন্যে কল্যাণকর। যারা মনের কার্পন্য থেকে
মুক্ত, তারাই সফলকাম। (At-Taghaabun: 16)
(19) যদি তোমরা তোমাদের মতই একজন মানুষের
আনুগত্য কর, তবে তোমরা নিশ্চিতরূপেই
ক্ষতিগ্রস্ত হবে। (Al-Muminoon: 34)
(20) তারা কি আল্লাহর দ্বীনের পরিবর্তে অন্য
দ্বীন তালাশ করছে? আসমান ও যমীনে যা কিছু
রয়েছে স্বেচ্ছায় হোক বা অনিচ্ছায় হোক, সমস্ত
কিছুই তাঁরই আনুগত্য করে এবং তাঁর দিকেই ফিরে
যাবে। (Aali Imraan: 83)
(21) আর যখন তাদেরকে বলা হয়, ‘তোমরা
অনুসরণ কর, যা আল্লাহ নাযিল করেছেন’, তারা বলে
‘বরং আমরা অনুসরণ করব আমাদের বাপ-দাদাদেরকে
যার উপর পেয়েছি। যদি তাদের বাপ-দাদারা কিছু না
বুঝে এবং হিদায়াতপ্রাপ্ত না হয়, তাহলেও কি? (Al-
Baqara: 170)
(22) আর নিশ্চয় শয়তানরা তাদের বন্ধুদেরকে
ওহী করে, যেন তারা তোমাদের সাথে বিবাদ
করে। যদি তোমরা তাদের আনুগত্য কর, তোমরাও
মুশরেক হয়ে যাবে। (Al-An’aam: 121)
(23) তারা বলেঃ আমরা আল্লাহ ও রাসূলের প্রতি
বিশ্বাস স্থাপন করেছি এবং আমরা আনুগত্য করেছি;
অতঃপর তাদের একদল মুখ ফিরিয়ে নেয় এবং তারা
বিশ্বাসী নয়। (An-Noor: 47)
(24) আপনি কাফেরদের আনুগত্য করবেন না এবং
তাদের সাথে এর (কুরআনের)সাহায্যে কঠোর
সংগ্রাম করুন। (Al-Furqaan: 52)
(25) অতএব, আপনি মিথ্যারোপকারীদের আনুগত্য
করবেন না। (Al-Qalam: 8)
(26) আর যে অধিক শপথ করে, যে লাঞ্ছিত, আপনি
তার আনুগত্য করবেন না। (A l-Qalam: 10)
(27) অতএব, আপনি আপনার পালনকর্তার আদেশের
জন্যে ধৈর্য্য সহকারে অপেক্ষা করুন এবং ওদের
মধ্যকার কোন পাপিষ্ঠ কাফেরের আনুগত্য করবেন
না। (Al-Insaan: 24)
(28) আর আপনি কাফের ও মুনাফিকদের আনুগত্য
করবেন না এবং তাদের নির্যাতন উপেক্ষা করুন আর
আল্লাহর উপর ভরসা করুন। তত্ত্বাবধায়ক হিসেবে
আল্লাহই যথেষ্ট।(Al-Ahzaab: 48)
(29) যেদিন অগ্নিতে তাদের মুখমন্ডল ওলট পালট
করা হবে; সেদিন তারা বলবে, হায়! আমরা যদি
আল্লাহর আনুগত্য করতাম এবং রাসূলের আনুগত্য
করতাম। (Al-Ahzaab: 66)

Advertisements