69.সুরাহ আল হাককাহ(01-52)


ﺑِﺴﻢِ ﺍﻟﻠَّﻪِ ﺍﻟﺮَّﺣﻤٰﻦِ ﺍﻟﺮَّﺣﻴﻢِ – শুরুকরছি আল্লাহর নামে যিনি পরম করুণাময়, অতিদয়ালু[1] ﺍﻟﺤﺎﻗَّﺔُ[1] সুনিশ্চিত বিষয়।[1] The Inevitable (i.e. the Day ofResurrection)![2] ﻣَﺎ ﺍﻟﺤﺎﻗَّﺔُ[2] সুনিশ্চিত বিষয় কি?[2] What is the Inevitable?[3] ﻭَﻣﺎ ﺃَﺩﺭﻯٰﻚَ ﻣَﺎ ﺍﻟﺤﺎﻗَّﺔُ[3] আপনি কি কিছু জানেন, সেই সুনিশ্চিত বিষয়কি?[3] And what will make you know whatthe Inevitable is?[4] ﻛَﺬَّﺑَﺖ ﺛَﻤﻮﺩُ ﻭَﻋﺎﺩٌﺑِﺎﻟﻘﺎﺭِﻋَﺔِ[4] আদ ও সামুদ গোত্র মহাপ্রলয়কে মিথ্যাবলেছিল।[4] Thamûd and ‘Ad people denied theQâri’ah [the striking Hour (ofJudgement)]![5] ﻓَﺄَﻣّﺎ ﺛَﻤﻮﺩُ ﻓَﺄُﻫﻠِﻜﻮﺍﺑِﺎﻟﻄّﺎﻏِﻴَﺔِ[5] অতঃপর সমুদ গোত্রকে ধ্বংস করাহয়েছিল এক প্রলয়ংকর বিপর্যয় দ্বারা।[5] As for Thamûd, they were destroyedby the awful cry![6] ﻭَﺃَﻣّﺎ ﻋﺎﺩٌ ﻓَﺄُﻫﻠِﻜﻮﺍ ﺑِﺮﻳﺢٍﺻَﺮﺻَﺮٍ ﻋﺎﺗِﻴَﺔٍ[6] এবং আদ গোত্রকে ধ্বংস করা হয়েছিলএক প্রচন্ড ঝঞ্জাবায়ূ,[6] And as for ‘Ad, they were destroyedby a furious violent wind![7] ﺳَﺨَّﺮَﻫﺎ ﻋَﻠَﻴﻬِﻢ ﺳَﺒﻊَ ﻟَﻴﺎﻝٍﻭَﺛَﻤٰﻨِﻴَﺔَ ﺃَﻳّﺎﻡٍ ﺣُﺴﻮﻣًﺎ ﻓَﺘَﺮَﻯﺍﻟﻘَﻮﻡَ ﻓﻴﻬﺎ ﺻَﺮﻋﻰٰ ﻛَﺄَﻧَّﻬُﻢﺃَﻋﺠﺎﺯُ ﻧَﺨﻞٍ ﺧﺎﻭِﻳَﺔٍ[7] যা তিনি প্রবাহিত করেছিলেন তাদের উপরসাত রাত্রি ও আট দিবস পর্যন্ত অবিরাম। আপনিতাদেরকে দেখতেন যে, তারা অসারখর্জুর কান্ডের ন্যায় ভূপাতিত হয়ে রয়েছে।[7] Which Allâh imposed on them forseven nights and eight days insuccession, so that you could see menlying overthrown (destroyed), as if theywere hollow trunks of date-palms![8] ﻓَﻬَﻞ ﺗَﺮﻯٰ ﻟَﻬُﻢ ﻣِﻦ ﺑﺎﻗِﻴَﺔٍ[8] আপনি তাদের কোন অস্তিত্ব দেখতেপান কি?[8] Do you see any remnants of them?[9] ﻭَﺟﺎﺀَ ﻓِﺮﻋَﻮﻥُ ﻭَﻣَﻦ ﻗَﺒﻠَﻪُﻭَﺍﻟﻤُﺆﺗَﻔِﻜٰﺖُ ﺑِﺎﻟﺨﺎﻃِﺌَﺔِ[9] ফেরাউন, তাঁর পূর্ববর্তীরা এবং উল্টেযাওয়া বস্তিবাসীরা গুরুতর পাপ করেছিল।[9] And Fir’aun (Pharaoh), and thosebefore him, and the cities overthrown[the towns of the people of [Lut (Lot)]committed sin,[10] ﻓَﻌَﺼَﻮﺍ ﺭَﺳﻮﻝَ ﺭَﺑِّﻬِﻢﻓَﺄَﺧَﺬَﻫُﻢ ﺃَﺧﺬَﺓً ﺭﺍﺑِﻴَﺔً[10] তারা তাদের পালনকর্তার রসূলকে অমান্যকরেছিল। ফলে তিনি তাদেরকেকঠোরহস্তে পাকড়াও করলেন।[10] And they disobeyed their Lord’sMessenger, so He seized them with astrong punishment.[11] ﺇِﻧّﺎ ﻟَﻤّﺎ ﻃَﻐَﺎ ﺍﻟﻤﺎﺀُﺣَﻤَﻠﻨٰﻜُﻢ ﻓِﻰ ﺍﻟﺠﺎﺭِﻳَﺔِ[11] যখন জলোচ্ছ্বাস হয়েছিল, তখন আমিতোমাদেরকে চলন্ত নৌযানে আরোহণকরিয়েছিলাম।[11] Verily! When the water rose beyondits limits [Nûh’s (Noah) Flood], Wecarried you (mankind) in the floating[ship that was constructed by Nûh(Noah)].[12] ﻟِﻨَﺠﻌَﻠَﻬﺎ ﻟَﻜُﻢ ﺗَﺬﻛِﺮَﺓًﻭَﺗَﻌِﻴَﻬﺎ ﺃُﺫُﻥٌ ﻭٰﻋِﻴَﺔٌ[12] যাতে এ ঘটনা তোমাদের জন্যে স্মৃতিরবিষয় এবং কান এটাকে উপদেশ গ্রহণেরউপযোগী রূপে গ্রহণ করে।[12] That We might make it a (Noah’sship)an admonition for you, and that itmight be retained by the retaining ears.[13] ﻓَﺈِﺫﺍ ﻧُﻔِﺦَ ﻓِﻰ ﺍﻟﺼّﻮﺭِﻧَﻔﺨَﺔٌ ﻭٰﺣِﺪَﺓٌ[13] যখন শিংগায় ফুৎকার দেয়া হবে-একটি মাত্রফুৎকার[13] Then when the Trumpet will beblown with one blowing (the first one),[14] ﻭَﺣُﻤِﻠَﺖِ ﺍﻷَﺭﺽُ ﻭَﺍﻟﺠِﺒﺎﻝُﻓَﺪُﻛَّﺘﺎ ﺩَﻛَّﺔً ﻭٰﺣِﺪَﺓً[14] এবং পৃথিবী ও পর্বতমালা উত্তোলিতহবে ও চুর্ণ-বিচুর্ণ করে দেয়া হবে,[14] And the earth and the mountainsshall be removed from their places, andcrushed with a single crushing.[15] ﻓَﻴَﻮﻣَﺌِﺬٍ ﻭَﻗَﻌَﺖِ ﺍﻟﻮﺍﻗِﻌَﺔُ[15] সেদিন কেয়ামত সংঘটিত হবে।[15] Then on that Day shall the (Great)Event befall.[16] ﻭَﺍﻧﺸَﻘَّﺖِ ﺍﻟﺴَّﻤﺎﺀُ ﻓَﻬِﻰَﻳَﻮﻣَﺌِﺬٍ ﻭﺍﻫِﻴَﺔٌ[16] সেদিন আকাশ বিদীর্ণ হবে ও বিক্ষিপ্তহবে।[16] And the heaven will berent asunder,for that Day it (the heaven) will be frail,and torn up.[17] ﻭَﺍﻟﻤَﻠَﻚُ ﻋَﻠﻰٰ ﺃَﺭﺟﺎﺋِﻬﺎ ۚﻭَﻳَﺤﻤِﻞُ ﻋَﺮﺵَ ﺭَﺑِّﻚَ ﻓَﻮﻗَﻬُﻢﻳَﻮﻣَﺌِﺬٍ ﺛَﻤٰﻨِﻴَﺔٌ[17] এবং ফেরেশতাগণ আকাশেরপ্রান্তদেশে থাকবে ও আট জনফেরেশতা আপনার পালনকর্তার আরশকেতাদের উর্ধ্বে বহন করবে।[17] And the angels will be on its sides,and eight angels will, that Day, bear theThrone of your Lord above them.[18] ﻳَﻮﻣَﺌِﺬٍ ﺗُﻌﺮَﺿﻮﻥَ ﻻﺗَﺨﻔﻰٰ ﻣِﻨﻜُﻢ ﺧﺎﻓِﻴَﺔٌ[18] সেদিন তোমাদেরকে উপস্থিত করাহবে। তোমাদের কোন কিছু গোপন থাকবেনা।[18] That Day shall you be brought toJudgement, not a secret of you will behidden.[19] ﻓَﺄَﻣّﺎ ﻣَﻦ ﺃﻭﺗِﻰَ ﻛِﺘٰﺒَﻪُﺑِﻴَﻤﻴﻨِﻪِ ﻓَﻴَﻘﻮﻝُ ﻫﺎﺅُﻡُ ﺍﻗﺮَﺀﻭﺍﻛِﺘٰﺒِﻴَﻪ[19] অতঃপর যার আমলনামা ডান হাতে দেয়াহবে, সে বলবেঃ নাও, তোমরাও আমলনামাপড়ে দেখ।[19] Then as for him who will be givenhis Record in his right hand will say:”Here! read my Record![20] ﺇِﻧّﻰ ﻇَﻨَﻨﺖُ ﺃَﻧّﻰ ﻣُﻠٰﻖٍﺣِﺴﺎﺑِﻴَﻪ[20] আমি জানতাম যে, আমাকে হিসাবেরসম্মুখীন হতে হবে।[20] “Surely, I did believe that I shallmeet my Account!”[21] ﻓَﻬُﻮَ ﻓﻰ ﻋﻴﺸَﺔٍ ﺭﺍﺿِﻴَﺔٍ[21] অতঃপর সে সুখী জীবন-যাপনকরবে,[21] So he shall be in a life, well-pleasing.[22] ﻓﻰ ﺟَﻨَّﺔٍ ﻋﺎﻟِﻴَﺔٍ[22] সুউচ্চ জান্নাতে।[22] In a lofty Paradise,[23] ﻗُﻄﻮﻓُﻬﺎ ﺩﺍﻧِﻴَﺔٌ[23] তার ফলসমূহ অবনমিত থাকবে।[23] The fruits in bunches whereof willbe low and near at hand.[24] ﻛُﻠﻮﺍ ﻭَﺍﺷﺮَﺑﻮﺍ ﻫَﻨﻴـًٔﺎ ﺑِﻤﺎﺃَﺳﻠَﻔﺘُﻢ ﻓِﻰ ﺍﻷَﻳّﺎﻡِ ﺍﻟﺨﺎﻟِﻴَﺔِ[24] বিগত দিনে তোমরা যা প্রেরণকরেছিলে, তার প্রতিদানে তোমরা খাও এবংপান কর তৃপ্তি সহকারে।[24] Eat and drink at ease for that whichyou have sent on before you in dayspast![25] ﻭَﺃَﻣّﺎ ﻣَﻦ ﺃﻭﺗِﻰَ ﻛِﺘٰﺒَﻪُﺑِﺸِﻤﺎﻟِﻪِ ﻓَﻴَﻘﻮﻝُ ﻳٰﻠَﻴﺘَﻨﻰ ﻟَﻢﺃﻭﺕَ ﻛِﺘٰﺒِﻴَﻪ[25] যার আমলনামা তার বাম হাতে দেয়া হবে,সে বলবেঃ হায় আমায় যদি আমার আমল নামা নাদেয়া হতো।[25] But as for him who will be given hisRecord in his left hand, will say: “I wishthat I had not been given my Record![26] ﻭَﻟَﻢ ﺃَﺩﺭِ ﻣﺎ ﺣِﺴﺎﺑِﻴَﻪ[26] আমি যদি না জানতাম আমার হিসাব![26] “And that I had never known, howmy Account is![27] ﻳٰﻠَﻴﺘَﻬﺎ ﻛﺎﻧَﺖِ ﺍﻟﻘﺎﺿِﻴَﺔَ[27] হায়, আমার মৃত্যুই যদি শেষ হত।[27] “Would that it had been my end(death)![28] ﻣﺎ ﺃَﻏﻨﻰٰ ﻋَﻨّﻰ ﻣﺎﻟِﻴَﻪ ۜ[28] আমার ধন-সম্পদ আমার কোন উপকারেআসল না।[28] “My wealth has not availed me;[29] ﻫَﻠَﻚَ ﻋَﻨّﻰ ﺳُﻠﻄٰﻨِﻴَﻪ[29] আমার ক্ষমতাও বরবাদ হয়ে গেল।[29] “My power (and arguments todefend myself) have gone from me!”[30] ﺧُﺬﻭﻩُ ﻓَﻐُﻠّﻮﻩُ[30] ফেরেশতাদেরকে বলা হবেঃ ধরএকে গলায় বেড়ি পড়িয়ে দাও,[30] (It will be said): “Seize him andfetter him;[31] ﺛُﻢَّ ﺍﻟﺠَﺤﻴﻢَ ﺻَﻠّﻮﻩُ[31] অতঃপর নিক্ষেপ কর জাহান্নামে।[31] Then throw him in the blazing Fire.[32] ﺛُﻢَّ ﻓﻰ ﺳِﻠﺴِﻠَﺔٍ ﺫَﺭﻋُﻬﺎﺳَﺒﻌﻮﻥَ ﺫِﺭﺍﻋًﺎ ﻓَﺎﺳﻠُﻜﻮﻩُ[32] অতঃপর তাকে শৃঙ্খলিত কর সত্তর গজদীর্ঘ এক শিকলে।[32] “Then fasten him with a chainwhereof the length is seventy cubits!”[33] ﺇِﻧَّﻪُ ﻛﺎﻥَ ﻻ ﻳُﺆﻣِﻦُ ﺑِﺎﻟﻠَّﻪِﺍﻟﻌَﻈﻴﻢِ[33] নিশ্চয় সে মহান আল্লাহতে বিশ্বাসীছিল না।[33] Verily, He used not to believe inAllâh, the Most Great,[34] ﻭَﻻ ﻳَﺤُﺾُّ ﻋَﻠﻰٰ ﻃَﻌﺎﻡِﺍﻟﻤِﺴﻜﻴﻦِ[34] এবং মিসকীনকে আহার্য দিতে উৎসাহিতকরত না।[34] And urged not on the feeding ofAl¬Miskîn (the poor),[35] ﻓَﻠَﻴﺲَ ﻟَﻪُ ﺍﻟﻴَﻮﻡَ ﻫٰﻬُﻨﺎﺣَﻤﻴﻢٌ[35] অতএব, আজকের দিন এখানে তার কোনসুহূদ নাই।[35] So no friend has he here this Day,[36] ﻭَﻻ ﻃَﻌﺎﻡٌ ﺇِﻟّﺎ ﻣِﻦ ﻏِﺴﻠﻴﻦٍ[36] এবং কোন খাদ্য নাই, ক্ষত-নিঃসৃত পুঁজব্যতীত।[36] Nor any food except filth from thewashing of wounds,[37] ﻻ ﻳَﺄﻛُﻠُﻪُ ﺇِﻟَّﺎ ﺍﻟﺨٰﻄِـٔﻮﻥَ[37] গোনাহগার ব্যতীত কেউ এটা খাবে না।[37] None will eat it except the Khâti’ûn(sinners, disbelievers, polytheists).[38] ﻓَﻼ ﺃُﻗﺴِﻢُ ﺑِﻤﺎ ﺗُﺒﺼِﺮﻭﻥَ[38] তোমরা যা দেখ, আমি তার শপথ করছি।[38] So I swear by whatsoever you see,[39] ﻭَﻣﺎ ﻻ ﺗُﺒﺼِﺮﻭﻥَ[39] এবং যা তোমরা দেখ না, তার-[39] And by whatsoever you see not,[40] ﺇِﻧَّﻪُ ﻟَﻘَﻮﻝُ ﺭَﺳﻮﻝٍ ﻛَﺮﻳﻢٍ[40] নিশ্চয়ই এই কোরআন একজন সম্মানিতরসূলের আনীত।[40] That this is verily the word of anhonoured Messenger [i.e. Jibril (Gabriel)or Muhammad SAW which he hasbrought from Allâh].[41] ﻭَﻣﺎ ﻫُﻮَ ﺑِﻘَﻮﻝِ ﺷﺎﻋِﺮٍ ۚﻗَﻠﻴﻠًﺎ ﻣﺎ ﺗُﺆﻣِﻨﻮﻥَ[41] এবং এটা কোন কবির কালাম নয়; তোমরাকমই বিশ্বাস কর।[41] It is not the word of a poet, little isthat you believe![42] ﻭَﻻ ﺑِﻘَﻮﻝِ ﻛﺎﻫِﻦٍ ۚ ﻗَﻠﻴﻠًﺎ ﻣﺎﺗَﺬَﻛَّﺮﻭﻥَ[42] এবং এটা কোন অতীন্দ্রিয়বাদীর কথানয়; তোমরা কমই অনুধাবন কর।[42] Nor is it the word of a soothsayer(or a foreteller), little is that youremember![43] ﺗَﻨﺰﻳﻞٌ ﻣِﻦ ﺭَﺏِّ ﺍﻟﻌٰﻠَﻤﻴﻦَ[43] এটা বিশ্বপালনকর্তার কাছ থেকেঅবতীর্ণ।[43] This is the Revelation sent downfrom the Lord of the ‘Alamin (mankind,jinn and all that exists).[44] ﻭَﻟَﻮ ﺗَﻘَﻮَّﻝَ ﻋَﻠَﻴﻨﺎ ﺑَﻌﺾَﺍﻷَﻗﺎﻭﻳﻞِ[44] সে যদি আমার নামে কোন কথা রচনাকরত,[44] And if he (Muhammad SAW) hadforged a false saying concerning Us(Allâh swt),[45] ﻟَﺄَﺧَﺬﻧﺎ ﻣِﻨﻪُ ﺑِﺎﻟﻴَﻤﻴﻦِ[45] তবে আমি তার দক্ষিণ হস্ত ধরেফেলতাম,[45] We surely would have seized him byhis right hand (or with power andmight),[46] ﺛُﻢَّ ﻟَﻘَﻄَﻌﻨﺎ ﻣِﻨﻪُ ﺍﻟﻮَﺗﻴﻦَ[46] অতঃপর কেটে দিতাম তার গ্রীবা।[46] And then we certainly would havecut off his life artery (Aorta),[47] ﻓَﻤﺎ ﻣِﻨﻜُﻢ ﻣِﻦ ﺃَﺣَﺪٍ ﻋَﻨﻪُﺣٰﺠِﺰﻳﻦَ[47] তোমাদের কেউ তাকে রক্ষা করতেপারতে না।[47] And none of you could witheld Usfrom (punishing) him.[48] ﻭَﺇِﻧَّﻪُ ﻟَﺘَﺬﻛِﺮَﺓٌ ﻟِﻠﻤُﺘَّﻘﻴﻦَ[48] এটা খোদাভীরুদের জন্যে অবশ্যইএকটি উপদেশ।[48] And verily, this (Qur’ân) is aReminder for the Muttaqûn (pious – seeV.2:2)[49] ﻭَﺇِﻧّﺎ ﻟَﻨَﻌﻠَﻢُ ﺃَﻥَّ ﻣِﻨﻜُﻢﻣُﻜَﺬِّﺑﻴﻦَ[49] আমি জানি যে, তোমাদের মধ্যে কেউকেউ মিথ্যারোপ করবে।[49] And verily, We know that there aresome among you that belie (this Qur’ân).(Tafsir At-Tabarî)[50] ﻭَﺇِﻧَّﻪُ ﻟَﺤَﺴﺮَﺓٌ ﻋَﻠَﻰﺍﻟﻜٰﻔِﺮﻳﻦَ[50] নিশ্চয় এটা কাফেরদের জন্যেঅনুতাপের কারণ।[50] And indeed it (this Qur’ân) will bean anguish for the disbelievers (on theDay of Resurrection).[51] ﻭَﺇِﻧَّﻪُ ﻟَﺤَﻖُّ ﺍﻟﻴَﻘﻴﻦِ[51] নিশ্চয় এটা নিশ্চিত সত্য।[51] And Verily, it (this Qur’ân) is anabsolute truth with certainty[52] ﻓَﺴَﺒِّﺢ ﺑِﺎﺳﻢِ ﺭَﺑِّﻚَﺍﻟﻌَﻈﻴﻢِ[52] অতএব, আপনি আপনার মহান পালনকর্তারনামের পবিত্রতা বর্ননা করুন।[52] So glorify the Name of your Lord,the Most Great.Bangla translation of Quran. Developedby Syed Mohammad Rasel[paglasoftatgmail.com]. Last updated o
Surah Al Haqqah Recitation: Sa’ad Al Ghamdi 1. সুনিশ্চিত বিষয়। 2. সুনিশ্চিত বিষয় কি? 3. আপনি কি কিছু জানেন, সেই সুনিশ্চিত বিষয় কি? 4. আদ ও সামুদ গোত্র মহাপ্রলয়কে মিথ্যা বলেছিল। 5. অতঃপর সমুদ গোত্রকে ধ্বংস করা হয়েছিল এক প্রলয়ংকর বিপর্যয় দ্বারা। 6. এবং আদ গোত্রকে ধ্বংস করা হয়েছিল এক প্রচন্ড ঝঞ্জাবায়ূ, 7. যা তিনি প্রবাহিত করেছিলেন তাদের উপর সাত রাত্রি ও আট দিবস পর্যন্ত অবিরাম। আপনি তাদেরকে দেখতেন যে, তারা অসার খর্জুর কান্ডের ন্যায় ভূপাতিত হয়ে রয়েছে। 8. আপনি তাদের কোন অস্তিত্ব দেখতে পান কি? 9. ফেরাউন, তাঁর পূর্ববর্তীরা এবং উল্টে যাওয়া বস্তিবাসীরা গুরুতর পাপ করেছিল। 10. তারা তাদের পালনকর্তার রসূলকে অমান্য করেছিল। ফলে তিনি তাদেরকে কঠোরহস্তে পাকড়াও করলেন। 11. যখন জলোচ্ছ্বাস হয়েছিল, তখন আমি তোমাদেরকে চলন্ত নৌযানে আরোহণ করিয়েছিলাম। 12. যাতে এ ঘটনা তোমাদের জন্যে স্মৃতির বিষয় এবং কান এটাকে উপদেশ গ্রহণের উপযোগী রূপে গ্রহণ করে। 13. যখন শিংগায় ফুৎকার দেয়া হবে-একটি মাত্র ফুৎকার 14. এবং পৃথিবী ও পর্বতমালা উত্তোলিত হবে ও চুর্ণ- বিচুর্ণ করে দেয়া হবে, 15. সেদিন কেয়ামত সংঘটিত হবে। 16. সেদিন আকাশ বিদীর্ণ হবে ও বিক্ষিপ্ত হবে। 17. এবং ফেরেশতাগণ আকাশের প্রান্তদেশে থাকবে ও আট জন ফেরেশতা আপনার পালনকর্তার আরশকে তাদের উর্ধ্বে বহন করবে। 18. সেদিন তোমাদেরকে উপস্থিত করা হবে। তোমাদের কোন কিছু গোপন থাকবে না। 19. অতঃপর যার আমলনামা ডান হাতে দেয়া হবে, সে বলবেঃ নাও, তোমরাও আমলনামা পড়ে দেখ। 20. আমি জানতাম যে, আমাকে হিসাবের সম্মুখীন হতে হবে। 21. অতঃপর সে সুখী জীবন- যাপন করবে, 22. সুউচ্চ জান্নাতে। 23. তার ফলসমূহ অবনমিত থাকবে। 24. বিগত দিনে তোমরা যা প্রেরণ করেছিলে, তার প্রতিদানে তোমরা খাও এবং পান কর তৃপ্তি সহকারে। 25. যার আমলনামা তার বাম হাতে দেয়া হবে, সে বলবেঃ হায় আমায় যদি আমার আমল নামা না দেয়া হতো। 26. আমি যদি না জানতাম আমার হিসাব! 27. হায়, আমার মৃত্যুই যদি শেষ হত। 28. আমার ধন-সম্পদ আমার কোন উপকারে আসল না। 29. আমার ক্ষমতাও বরবাদ হয়ে গেল। 30. ফেরেশতাদেরকে বলা হবেঃ ধর একে গলায় বেড়ি পড়িয়ে দাও, 31. অতঃপর নিক্ষেপ কর জাহান্নামে। 32. অতঃপর তাকে শৃঙ্খলিত কর সত্তর গজ দীর্ঘ এক শিকলে। 33. নিশ্চয় সে মহান আল্লাহতে বিশ্বাসী ছিল না। 34. এবং মিসকীনকে আহার্য দিতে উৎসাহিত করত না। 35. অতএব, আজকের দিন এখানে তার কোন সুহূদ নাই। 36. এবং কোন খাদ্য নাই, ক্ষত- নিঃসৃত পুঁজ ব্যতীত। 37. গোনাহগার ব্যতীত কেউ এটা খাবে না। 38. তোমরা যা দেখ, আমি তার শপথ করছি। 39. এবং যা তোমরা দেখ না, তার- 40. নিশ্চয়ই এই কোরআন একজন সম্মানিত রসূলের আনীত। 41. এবং এটা কোন কবির কালাম নয়; তোমরা কমই বিশ্বাস কর। 42. এবং এটা কোন অতীন্দ্রিয়বাদীর কথা নয়; তোমরা কমই অনুধাবন কর। 43. এটা বিশ্বপালনকর্তার কাছ থেকে অবতীর্ণ। 44. সে যদি আমার নামে কোন কথা রচনা করত, 45. তবে আমি তার দক্ষিণ হস্ত ধরে ফেলতাম, 46. অতঃপর কেটে দিতাম তার গ্রীবা। 47. তোমাদের কেউ তাকে রক্ষা করতে পারতে না। 48. এটা খোদাভীরুদের জন্যে অবশ্যই একটি উপদেশ। 49. আমি জানি যে, তোমাদের মধ্যে কেউ কেউ মিথ্যারোপ করবে। 50. নিশ্চয় এটা কাফেরদের জন্যে অনুতাপের কারণ। 51. নিশ্চয় এটা নিশ্চিত সত্য। 52. অতএব, আপনি আপনার মহান পালনকর্তার নামের পবিত্রতা বর্ননা করুন। *********

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s