91.সুরাহ আস সামস(1-15)


ﺑِﺴﻢِ ﺍﻟﻠَّﻪِ ﺍﻟﺮَّﺣﻤٰﻦِ ﺍﻟﺮَّﺣﻴﻢِ – শুরু
করছি আল্লাহর নামে যিনি পরম
করুণাময়, অতি দয়ালু
[1] ﻭَﺍﻟﺸَّﻤﺲِ ﻭَﺿُﺤﻯٰﻬﺎ
[1] শপথ সূর্যের ও তার কিরণের,
[1] By the sun and its brightness;
[2] ﻭَﺍﻟﻘَﻤَﺮِ ﺇِﺫﺍ ﺗَﻠﻯٰﻬﺎ
[2] শপথ চন্দ্রের যখন তা সূর্যের
পশ্চাতে আসে,
[2] By the moon as it follows it (the sun);
[3] ﻭَﺍﻟﻨَّﻬﺎﺭِ ﺇِﺫﺍ ﺟَﻠّﻯٰﻬﺎ
[3] শপথ দিবসের যখন সে সূর্যকে
প্রখরভাবে প্রকাশ করে,
[3] By the day as it shows up (the sun’s)
brightness;
[4] ﻭَﺍﻟَّﻴﻞِ ﺇِﺫﺍ ﻳَﻐﺸﻯٰﻬﺎ
[4] শপথ রাত্রির যখন সে সূর্যকে
আচ্ছাদিত করে,
[4] By the night as it conceals it (the
sun);
[5] ﻭَﺍﻟﺴَّﻤﺎﺀِ ﻭَﻣﺎ ﺑَﻨﻯٰﻬﺎ
[5] শপথ আকাশের এবং যিনি তা
নির্মাণ করেছেন, তাঁর।
[5] By the heaven and Him Who built it;
[6] ﻭَﺍﻷَﺭﺽِ ﻭَﻣﺎ ﻃَﺤﻯٰﻬﺎ
[6] শপথ পৃথিবীর এবং যিনি তা বিস্তৃত
করেছেন, তাঁর,
[6] By the earth and Him Who spread it,
[7] ﻭَﻧَﻔﺲٍ ﻭَﻣﺎ ﺳَﻮّﻯٰﻬﺎ
[7] শপথ প্রাণের এবং যিনি তা
সুবিন্যস্ত করেছেন, তাঁর,
[7] And by Nafs (Adam or a person or a
soul), and Him Who perfected him in
proportion;
[8] ﻓَﺄَﻟﻬَﻤَﻬﺎ ﻓُﺠﻮﺭَﻫﺎ ﻭَﺗَﻘﻮﻯٰﻬﺎ
[8] অতঃপর তাকে তার অসৎকর্ম ও
সৎকর্মের জ্ঞান দান করেছেন,
[8] Then He showed him what is wrong
for him and what is right for him;
[9] ﻗَﺪ ﺃَﻓﻠَﺢَ ﻣَﻦ ﺯَﻛّﻯٰﻬﺎ
[9] যে নিজেকে শুদ্ধ করে, সেই
সফলকাম হয়।
[9] Indeed he succeeds who purifies his
ownself (i.e. obeys and performs all that
Allâh ordered, by following the true
Faith of Islâmic Monotheism and by
doing righteous good deeds).
[10] ﻭَﻗَﺪ ﺧﺎﺏَ ﻣَﻦ ﺩَﺳّﻯٰﻬﺎ
[10] এবং যে নিজেকে কলুষিত করে, সে
ব্যর্থ মনোরথ হয়।
[10] And indeed he fails who corrupts his
ownself (i.e. disobeys what Allâh has
ordered by rejecting the true Faith of
Islâmic Monotheism or by following
polytheism or by doing every kind of evil
wicked deeds)
[11] ﻛَﺬَّﺑَﺖ ﺛَﻤﻮﺩُ ﺑِﻄَﻐﻮﻯٰﻬﺎ
[11] সামুদ সম্প্রদায় অবাধ্যতা বশতঃ
মিথ্যারোপ করেছিল।
[11] Thamûd (people) denied (their
Prophet) through their transgression (by
rejecting the true Faith of Islâmic
Monotheism, and by following
polytheism, and by committing every
kind of sin).
[12] ﺇِﺫِ ﺍﻧﺒَﻌَﺚَ ﺃَﺷﻘﻯٰﻬﺎ
[12] যখন তাদের সর্বাধিক হতভাগ্য
ব্যক্তি তৎপর হয়ে উঠেছিল।
[12] When the most wicked man among
them went forth (to kill the she-camel).
[13] ﻓَﻘﺎﻝَ ﻟَﻬُﻢ ﺭَﺳﻮﻝُ ﺍﻟﻠَّﻪِ
ﻧﺎﻗَﺔَ ﺍﻟﻠَّﻪِ ﻭَﺳُﻘﻴٰﻬﺎ
[13] অতঃপর আল্লাহর রসূল তাদেরকে
বলেছিলেনঃ আল্লাহর উষ্ট্রী ও তাকে
পানি পান করানোর ব্যাপারে সতর্ক
থাক।
[13] But the Messenger of Allâh [Sâlih
(Saleh) A.S.] said to them: “Be cautious!
(Fear the evil end). That is the she-camel
of Allâh! (Do not harm it) and bar it not
from having its drink!”
[14] ﻓَﻜَﺬَّﺑﻮﻩُ ﻓَﻌَﻘَﺮﻭﻫﺎ ﻓَﺪَﻣﺪَﻡَ
ﻋَﻠَﻴﻬِﻢ ﺭَﺑُّﻬُﻢ ﺑِﺬَﻧﺒِﻬِﻢ
ﻓَﺴَﻮّﻯٰﻬﺎ
[14] অতঃপর ওরা তার প্রতি
মিথ্যারোপ করেছিল এবং উষ্ট্রীর পা
কর্তন করেছিল। তাদের পাপের কারণে
তাদের পালনকর্তা তাদের উপর ধ্বংস
নাযিল করে একাকার করে দিলেন।
[14] Then they denied him and they
killed it. So their Lord destroyed them
because of their sin, and made them
equal in destruction (i.e. all grades of
people, rich and poor, strong and weak)!
[15] ﻭَﻻ ﻳَﺨﺎﻑُ ﻋُﻘﺒٰﻬﺎ
[15] আল্লাহ তা’আলা এই ধ্বংসের
কোন বিরূপ পরিণতির আশংকা করেন
না।
[15] And He (Allâh) feared not the
consequences thereof.
Surah Al Shams
Advertisement
The Average Joe
Buying Gold
Get Started for free,
No Monthly Fees, No
Membership fees or any other
fees. buying and selling gold.
Easy as 1-2-3
Get Started Today!
Ads by AdClickMedia
ﺑِﺴْﻢِ ﺍﻟﻠَّﻪِ ﺍﻟﺮَّﺣْﻤَﻦِ ﺍﻟﺮَّﺣِﻴﻢِ
1.
শপথ সূর্যের ও তার কিরণের,
2.
শপথ চন্দ্রের যখন তা সূর্যের
পশ্চাতে আসে,
3.
শপথ দিবসের যখন সে সূর্যকে
প্রখরভাবে প্রকাশ করে,
4.
শপথ রাত্রির যখন সে সূর্যকে
আচ্ছাদিত করে,
5.
শপথ আকাশের এবং যিনি তা নির্মাণ
করেছেন, তাঁর।
6.
শপথ পৃথিবীর এবং যিনি তা বিস্তৃত
করেছেন, তাঁর,
7.
শপথ প্রাণের এবং যিনি তা সুবিন্যস্ত
করেছেন, তাঁর,
8.
অতঃপর তাকে তার অসৎকর্ম ও
সৎকর্মের জ্ঞান দান করেছেন,
9.
যে নিজেকে শুদ্ধ করে, সেই
সফলকাম হয়।
10.
এবং যে নিজেকে কলুষিত করে,
সে ব্যর্থ মনোরথ হয়।
11.
সামুদ সম্প্রদায় অবাধ্যতা বশতঃ
মিথ্যারোপ করেছিল।
12.
যখন তাদের সর্বাধিক হতভাগ্য ব্যক্তি
তৎপর হয়ে উঠেছিল।
13.
অতঃপর আল্লাহর রসূল তাদেরকে
বলেছিলেনঃ আল্লাহর উষ্ট্রী ও
তাকে পানি পান করানোর ব্যাপারে
সতর্ক থাক।
14.
অতঃপর ওরা তার প্রতি মিথ্যারোপ
করেছিল এবং উষ্ট্রীর পা কর্তন
করেছিল। তাদের পাপের কারণে
তাদের পালনকর্তা তাদের উপর ধ্বংস
নাযিল করে একাকার করে দিলেন।
15.
আল্লাহ তা’আলা এই ধ্বংসের কোন
বিরূপ পরিণতির আশংকা করেন না।
*********